বাংলাদেশের সেরা 5 টি অনলাইনে কেনাকাটার ওয়েবসাইট

বর্তমানে বাংলাদেশে বিভিন্ন কেনাকাটার ওয়েবসাইট গুলো এত বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে যে যা বলার বাহিরে। এখন মানুষ নিত্যপণ্য থেকে শুরু করে ঘরের ফার্নিচার নিজের পোষাক আশাক সাজগোজের জিনিসপত্র এমনকি খাবার-দাবার সবকিছুই অনলাইন থেকে কিনতে পছন্দ করছে। আগে একটা সময় ছিল যখন মানুষ ভাবতো অনলাইনে শপিং কিভাবে করে। কিন্তু এখন যুগ পালটে গেছে এখন মানুষ ঘরে বসেই সব কেনাকাটা সেরে ফেলছে। বাহিরে যেয়ে কেনাকাটা করাটা এখন মানুষ সময় নষ্ট বলে মনে করছে। আজকে মূলত আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরবো জনপ্রিয় কিছু বাংলাদেশে অনলাইন শপিং সাইট সম্পর্কে। বাংলাদেশ অনলাইন মার্কেট গুলো এখন আগের থেকে অনেক বেশি উন্নত।

আগের তুলনায় এখন অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট ও অনেক বেশি বেড়েছে। বর্তমানে যেসব বাংলাদেশের অনলাইন শপিং সাইট গুলো বাংলাদেশের গ্রাহকদের সবচাইতে সেরা সেবা প্রধান করছে আমরা আজকে মূলত তাদের নিয়ে আলোচনা করব। সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়লে আপনি বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং মল গুলো সম্পর্কে জানতে পারবেন আজকের এই আর্টিকেলটি থেকে। আমি আজকে পাঁচটি বাংলাদেশের সেরা অনলাইন মার্কেট সম্পর্কে আপনাদের ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করব। অনলাইনে কেনাকাটা করার সহজ এবং সবচাইতে ভালো মাধ্যমিক হচ্ছে অনলাইন শপিং সাইট। চলুন তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে অনলাইনে কেনাকাটার সাইট গুলো সম্পর্কে নিজের বিষয় জেনে নেওয়া যাক।

বাংলাদেশের সেরা 5 টি অনলাইনে কেনাকাটার ওয়েবসাইট সম্পর্কে জেনে নিন

জনপ্রিয় পাঁচটি অনলাইনে কেনাকাটার ওয়েবসাইট

এক বিংশ শতাব্দী থেকেই পুরো বিশ্বব্যাপী অনলাইন কেনাকাটা ওয়েবসাইট গুলো জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অনলাইন এখন এমন একটি প্ল্যাটফর্ম হয়ে উঠেছে যেখানে আপনি চাইলে মুভির টিকিট থেকে শুরু করে বিমান রেল বাস লঞ্চ টিকেট সহজে কোন কিছুই সহজে হাতের কাছে পেয়ে যাবেন। সবচাইতে মজার ব্যাপার হল যে এসব জিনিস কেনার জন্য আপনার ঘরের বাইরে যেতে হবে না এমনকি সেসব ওয়েবসাইটগুলোর লোকেরা নিজেরাই এসে আপনাকে হোম ডেলিভারি দিয়ে যাবে তাও আপনার বাড়ির দরজায় এসে।

বর্তমানে এই যুগে কেউই চায় না সময় নষ্ট করে রোদ কিংবা জ্যাম ঠেলে তারপর মার্কেটে যে কেনাকাটা করতে। বাংলাদেশ অনলাইন শপিং আগে খুব বেশি একটা জনপ্রিয় না হলেও করোনা ভাইরাস আসার পর জানো এটিই মানুষের একমাত্র মাধ্যম হয়ে উঠেছে। বর্তমান সময়ে বাংলাদেশে অনলাইন কেনাকাটার ওয়েবসাইট গুলোর পরিমাণ প্রচুর বেড়ে গেছে কিন্তু চিন্তার বিষয় হল সবগুলো ওয়েবসাইটে কিন্তু বিশ্বস্ত নয় তাই আমাদের উচিত কেনাকাটা করার আগে অবশ্যই সাইট গুলো বিশ্বস্ত কিনা তা যাচাই বাছাই করে নেওয়া। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক জনপ্রিয় পাঁচটি বাংলাদেশ কেনাকাটার ওয়েবসাইট সম্পর্কে যেগুলো বিশ্বস্ত এবং খুব জনপ্রিয়।

বাংলাদেশের অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট লিস্ট

দারাজ

বর্তমানে বাংলাদেশের সবচাইতে বড়  ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান হচ্ছে দারাজ। অনলাইনে কেনাকাটার জন্য এই ওয়েবসাইটটি এখন বাংলাদেশে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে রয়েছে। নিত্যপূর্ণ সবকিছুই আপনি এখন পেয়ে যাবেন দারাজে। দারাজ বিভিন্ন সময় মানুষের সুবিধা জন্য অনেক ধরনের অফার দিয়ে থাকে। এছাড়াও দারাজ দ্রুত ডেলিভারি দেওয়ার জন্য অনেক সুপরিচিত। অনলাইন শপিং মল গুলোর মধ্যে সবচাইতে বেশি পিকআপ পয়েন্ট অথবা হাব একমাত্র দারাজের রয়েছে। দারাজ হচ্ছে চীনের আলিবাবা গ্রুপের মালিকানাধীন যা দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম একটি সেরা অনলাইন শপিং সাইট। daraz.com আপনি ফ্যাশন আইটেম কিনতে যে কখনোই বিরক্ত হবেন না। এছাড়াও দারাজে আপনি সব ধরনের পণ্যই খুবই সাশ্রয়ী ও সুলভ মূল্যে পেয়ে যাবেন।

রকমারি

যারা বই প্রেমী রয়েছেন তাদের জন্য সবচাইতে সেরা একটি ওয়েবসাইট হচ্ছে রকমারি। বাংলাদেশের সেরা একটি ওয়েবসাইট হচ্ছে একরকম আর যেটি বই কেনাকাটার জন্য বেস্ট। যেকোনো ধরনের বই যা হয়ত আপনি মার্কেটে গেলে অনেক খোঁজাখুঁজি করতে হবে কিন্তু রকমারিতে আপনি সার্চ করলে সহজেই তা পেয়ে যাবেন। এছাড়াও আপনি চাইলে অনেক ধরনের বই pre-order করে রাখতে পারবেন। বইপ্রেমীদের এখন আর বই কিনতে বইমেলার অপেক্ষা করতে হবে না এখন তারা চাইলে রকমারিতে যেকোনো সময় যেকোনো ধরনের বই কিনে ফেলতে পারবে তাও ঝামেলা মুক্ত ভাবেই।

চাল-ডাল

আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় দৈনন্দিন জীবনে যত জিনিস রয়েছে যেমন চাল ডাল তেল সাবান সবজি মাছ ইত্যাদি সকল ধরনের গ্রোসারি পণ্য আপনি চাইলে খুব সহজেই চালডাল ওয়েবসাইট থেকে কিনতে পারবেন। তারা এসব পণ্য ডেলিভারি দেওয়ার জন্য বেশ সুনাম অর্জন করেছে। এছাড়াও তারা অনেক পণ্য বিভিন্ন ধরনের অফার দিয়ে থাকে এবং দাম দোকানের চাইতে অনেক কম রেখে থাকে। আর তাদের ওয়েবসাইটে বেশিরভাগ সময়ই ডিসকাউন্ট থাকেই। আবার দ্রুত প্রোডাক্ট ডেলিভারি দেওয়ার জন্য তাদের বেশ সুনাম রয়েছে। অনেক ওয়েবসাইটে দেখা যায় কোন কিছু অর্ডার করলে তা পেতে আমাদের দুই থেকে তিন দিন সময় লাগে কিন্তু চালডাল এ কোন কিছু অর্ডার করলে আপনি 15 মিনিট থেকে এক ঘন্টার মাঝে ডেলিভারি পেয়ে যাবেন।

ফুডপান্ডা

বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট থেকে খাবার অর্ডার করার জন্য ফুডপান্ডা বাংলাদেশ এখন বেশ জনপ্রিয়। ভালো সার্ভিস প্রদান করার কারণে ফুডপান্ডা বাংলাদেশ অনেক সুনাম অর্জন করেছে। আপনি চাইলে আপনার পছন্দের যে কোন খাবার যে কোনো পছন্দের রেস্টুরেন্ট থেকেই অনলাইন শপ ফুটবলার মাধ্যমে অর্ডার করতে পারেন এবং তারা খুব দ্রুতই আপনার অর্ডার আপনার বাড়ির সামনে এসে ডেলিভারি দিয়ে যাবেন। আপনি চাইলে ফুডপাণ্ডার মাধ্যমে যেকোনো ধরনের খাবার অর্ডার করতে পারবেন চাইনিজ মেক্সিকান দেশি খাবার থাই ইত্যাদি। আর খাবার অর্ডার ডেলিভারি ও দেয়া হবে খুব দ্রুতই। 15 মিনিট থেকে 1 ঘণ্টার মাঝে আপনি আপনার পছন্দের খাবার আপনার বাড়ির সামনে পেয়ে যাবেন।

প্রিয়শপ

ফ্যাশন পোশাকের আইটেমের জন্য priyoshop.com এখন তালিকার শীর্ষে রয়েছে। লাইফ-স্টাইল পণ্যের বিশাল সমাহার রয়েছে এই ওয়েবসাইটটিতে। তবে দারাজের মতোই প্রিয়শপের আপনি চাইলে সকল ধরনের প্রোডাক্টটি ক্রয় করতে পারবেন। প্রিয়শপ এখনো চেষ্টায় আছে আরো কিছু ব্যান্ড ও আরো কিছু প্রোডাক্ট তাদের ওয়েবসাইটে যুক্ত করার জন্য। যদিও প্রীয়শপ দারাজ এর মত এত বেশি অফার দিয়ে থাকে না। তবে এমন অনেক জিনিস রয়েছে যা আপনি হয়ত অন্যান্য ই-কমার্স সাইট গুলোতে পাবেন না তবে প্রিয়শপে পেয়ে যেতে পারেন।

 অনলাইন কেনাকাটায় সর্তকতা

অনলাইন কেনাকাটা যেমন সুবিধা রয়েছে তেমন এই প্লাটফর্মে সতর্কতাঃ থাকারও অনেক দরকার রয়েছে। অনেক সময় দেখা যায় যে বিভিন্ন ওয়েবসাইট গুলো তাদের পণ্যের অনেক ধরনের অফার দিয়ে থাকে। তখন মানুষ অফার পাওয়ার লোভে পড়ে কোনকিছু যাচাই-বাছাই না করে অর্ডার করে ফেলেন এবং ডেলিভারি পাওয়ার পর বুঝতে পারেন যে আসলে পণ্যটির ডেট ফেল ছিল। আবার এমন এক ধরনের চক্র রয়েছে যারা প্রোডাক্ট দেওয়ার কথা বলে অগ্রিম টাকা নিয়ে থাকে। তাই এই ধরনের ঝামেলা এড়াতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে কিছু সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে। কেনাকাটার আগে অবশ্যই ভালো কোন ওয়েবসাইট থেকে কেনাকাটা নিশ্চিত করতে হবে।

পরিশেষ,

আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি পড়ে অনলাইন কেনাকাটার ওয়েবসাইট সম্পর্কে আপনাদের বেশ ভালো অভিজ্ঞতা হয়েছে। আমি আজকে যে পাঁচটি ওয়েবসাইট নিয়ে আলোচনা করেছি এগুলো এখন বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয় এবং অনেক বিশ্বস্ত। আপনি চাইলে এসব ওয়েবসাইট থেকে সহজেই কেনাকাটা করতে পারেন। আজকের মতো এই আর্টিকেল এখানেই শেষ করছি। অনলাইন কেনাকাটা বাংলাদেশ নিয়ে যদি আপনাদের আর কোন কিছু জানার থেকে থাকে তাহলে এখনি আমাদের তা কমেন্ট করে জানিয়ে দিন। আমরা যত দ্রুত সম্ভব আপনাদের প্রশ্নেৱ উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব। আবার অন্য কোন আর্টিকেল নিয়ে আপনাদের সামনে খুব শীঘ্রই হাজির হব সেই পর্যন্ত ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Scroll to Top