মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার অ্যাপস ২০২২

মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করা যায় কিভাবে?যারা ভিডিও স্ট্রিমিং করার জন্য ইউটিউব ব্যবহার করেন, এটি তাদের  কাছ থেকে পাওয়া সবচেয়ে কমন প্রশ্নগুলোর একটি। বিভিন্ন বিষয়ে ভিডিও দেখার জন্য ইউটিউব তো আমরা সবাই ব্যবহার করি। কিন্তু কিভাবে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে হয়, মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম অথবা ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার এপস এর ব্যাপারে আমরা কতটুকুই বা জানি? আজকে আমি আপনাদেরকে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার apps সম্পর্কে জানাবো। ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সফটওয়্যার, ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড সফটওয়্যার,ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সম্পর্কে জানতে পারলে আপনারা কিভাবে অডিও গান ডাউনলোড করব অথবা ভিডিও গান ডাউনলোড করব ইত্যাদি সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন।

 

মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

 

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড সম্পর্কে জানুন

বিনামূল্যে রান্নাবান্না, খেলাধুলা অথবা  বিভিন্ন বিনোদনমূলক ভিডিও দেখার জন্য ইউটিউব এর জনপ্রিয়তা বিশ্বব্যাপী। ইউটিউব দেখার জন্য ইন্টারনেট কানেকশন থাকা ম্যান্ডেটরি। আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন যারা ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম জেনে ভিডিও ডাউনলোড করে রাখতে চান। যেন তারা পরবর্তীতে নিজেদের পছন্দমতো সময়ে সেটি দেখে নিতে পারেন। 

তবে এই ভিডিও প্ল্যাটফর্মটির নিজস্ব কোন ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার নেই। এটি না থাকার কারণে আপনারা সরাসরি ইউটিউব থেকে  কোন ভিডিও ডাউনলোড করে ফোনে সেভ করে রাখতে পারবেন না। 

তবে ইউটিউবের নিজস্ব অ্যাপটির মধ্যে ডাউনলোড নামের একটি অপশন রয়েছে, যেটির মাধ্যমে আপনারা ইউটিউব-এর ভিডিও ডাউনলোড করে রাখতে পারেন। তবে এই অপশনটির অসুবিধা হচ্ছে ভিডিও ডাউনলোড করার পরেও সেই ভিডিওটি ইউটিউব অ্যাপ এর ভিতরেই থেকে যায়। 

এ কারণে অনেকের মনে প্রশ্ন থাকে ইউটিউবে কিভাবে অডিও গান ডাউনলোড করব বা ভিডিও গান ডাউনলোড করবো। এ প্রশ্নটির উত্তর হচ্ছে বর্তমানে ইন্টারনেটে অনেক ভিডিও ডাউনলোডার বা  বিদ্যমান রয়েছে। 

এই ওয়েবসাইট বা সফটওয়্যার গুলোর মাধ্যমে আপনারা যেমন ডেক্সটপ কম্পিউটার থেকে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন, তেমনি এগুলোর মাধ্যমে মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করাও অসম্ভব কিছু নয়। 

সুতরাং বুঝতেই পারছেন যারা ইউটিউব-এর ভিডিও ডাউনলোড করে নিজেদের ফোনে বা ল্যাপটপ এ সেভ করে রাখতে চান, তাদেরকে  ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার  কোনটি অথেন্টিক এবং কোনটি থেকে আসলেই আপনারা ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন সেটি সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে। 

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সফটওয়্যার 

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম কিন্তু অনেক সহজ। কয়েকটি ধাপ ফলো করলেই আপনারা নিজেদের পছন্দমতো ভিডিওগুলো ডাউনলোড করে নিতে পারবেন৷ যেহেতু ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার ইউটিউব নিজে প্রোভাইড করেনা, তাই আমরা কয়েকটি অথেন্টিক ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার এপস এর সাহায্য নেবো। এগুলোকে 

ইউটিউব ডাউনলোড সফটওয়্যার বা ইউটিউব ডাউনলোডার ও বলেন অনেকে। 

এগুলোর সাহায্যে ডেস্কটপ, ল্যাপটপ, ট্যাব এমনকি মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। তাই যাদের ল্যাপটপ নেই এবং যারা মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে চান, তাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। আবার অনেক ওয়েবসাইটও রয়েছে যেগুলো থেকে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক ভিডিও ডাউনলোড করার apps সম্পর্কে। 

১। Vidmate

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সফটওয়্যার হিসেবে আমি সবার আগে যেই সফটওয়্যারটির নাম বলবো সেটি নাম হল Vidmate.  যারা মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে চান, তাদের জন্য এই সফটওয়্যারটি একদম সেরা।  এই সফটওয়্যার টি একদম বিনামূল্যে ব্যবহার করা যায় এবং ইউটিউব সহ অন্যান্য অনেক প্লাটফর্ম থেকে আপনি খুব সহজে ভিডিও ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।  তাই ইউটিউব ডাউনলোড সফটওয়্যার হিসেবে সফটওয়্যারটিকে আমি দশের মধ্যে দশ দেবো। 

২. YT3 Downloader 

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড সফটওয়্যার হিসেবে এই অ্যাপটি খুবই ফেমাস। ছোট্ট এই সফটওয়্যারটি অত্যন্ত পাওয়ারফুল। এ কারণে আপনারা খুব কম সময়ের মধ্যে নিজেদের পছন্দমতো কোয়ালিটি অনুযায়ী এই ওয়েবসাইটে থেকে ল্যাপটপে বা মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।  আবার একই সাথে যারা কিভাবে অডিও গান ডাউনলোড করব অথবা ভিডিও গান ডাউনলোড করব জানতে চেয়ে থাকেন, তাদের জন্য বলতে চাই এই ওয়েবসাইটটি থেকে আপনারা এমপিথ্রি এবং এমপিফোর দুটি ভার্সনে ইউটিউব থেকে নিজের পছন্দের ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। 

৩। Snaptube

এখন আমি আপনাদেরকে এমন একটি ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সফটওয়্যার সম্পর্কে বলব যেটি তুলনামূলক নতুন হলেও অত্যন্ত শক্তিশালী একটি সফটওয়্যার। এটির নাম হলো Snaptube.  সহজ এবং ইউজার ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেসের পাশাপাশি ইউটিউব সহ আরও অনেক ওয়েবসাইট থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সুবিধা দেয়ায় এই সফটওয়ারটি বর্তমানে অনেক মানুষের নজর কেড়েছে। এই ভিডিও ডাউনলোড করার apps টির সুবিধা হচ্ছে এটি ব্যবহার করে আপনি নিজের পছন্দমত ভিডিও কোয়ালিটি সিলেক্ট করার পর সেই ভিডিওটি ডাউনলোড করতে পারবেন।  এই সফটওয়্যারটির একটি অসুবিধা সেটি হল এটি শুধুমাত্র এন্ড্রয়েড ফোনে সাপোর্ট করে। 

৪। Tubemet

যারা ইউটিউব ডাউনলোড সফটওয়্যার সম্পর্কে জানার পাশাপাশি কিভাবে টিকটক থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে হয় সেটি জানতে চান, তাদের জন্য এই অ্যাপটি অত্যন্ত কার্যকরী। এই ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার এর সাহায্যে আপনারা নিজের পছন্দের ভিডিও ডাউনলোড করতে পারেন৷ 

৫। InsTube 

InsTube হচ্ছে মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড

করার জন্য দারুণ একটি ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার। এই ভিডিও ডাউনলোড সফটওয়্যার দিয়ে হাই কোয়ালিটির ভিডিও ডাউনলোড করা পসিবল। এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনারা ইউটিউবের পাশাপাশি বিভিন্ন সোশ্যাল সাইট থেকেও ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন৷ তবে এই অ্যাপে অ্যাডের পরিমাণ কিছুটা বেশি, যা বিরক্তির সৃষ্টি করতে পারে। 

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার এপস হিসেবে আমি এই পাঁচটিকেই টপ প্রায়োরিটি লিস্টে রেখেছি।

আরো পড়ুন

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সফটওয়্যার সম্পর্কে তো জেনে ফেললেন, এবার আসা যাক আপনাদের এই অ্যাপ দিয়ে কিভাবে অডিও গান ডাউনলোড করব বা ভিডিও গান ডাউনলোড করব এই প্রশ্নের উত্তরে। আমি যে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার নিয়ে আলোচনা করেছি, সেই সবগুলো সফটওয়্যার দিয়ে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম একই। 

এই ভিডিও ডাউনলোড সফটওয়্যার কাজে লাগিয়ে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম হচ্ছে প্রথমেই এই সফটওয়্যার গুলো অথেন্টিক সোর্স থেকে ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিন। তারপর এগুলোর সার্চবারে সার্চ দিয়ে আপনি যে ভিডিওটি ডাউনলোড করতে চাইছেন সেটা খুঁজে বের করুন।

এরপরে ভিডিওটির পাশে ডাউনলোড অপশন দেখতে পাবেন। তারপর নিজের পছন্দমত কোয়ালিটি সিলেক্ট করে ডাউনলোড করে ফেলুন নিজের পছন্দের ইউটিউব ভিডিওটি। এভাবেই ইউটিউব ডাউনলোড সফটওয়্যার কাজে লাগিয়ে আপনারা মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে সক্ষম হবেন৷ 

এবার আমি আপনাদেরকে কয়েকটি টিপস দেই। আপনারা যদি গুগলে সার্চ করেন তাহলে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সফটওয়্যার হিসেবে অনেকগুলো সফটওয়্যার এর লিঙ্ক দেখতে পাবেন। তবে আমার পরামর্শ থাকবে এসব লিংকে সাথে সাথে ক্লিক না করে আগে এগুলোর অথেন্টিসিটি নিয়ে একটু রিসার্চ করে নিন।

কারণ হতেই পারে আপনি ইউটিউব ডাউনলোডার লেখা দেখে একটি সফটওয়্যার ইন্সটল করলেন ঠিকই, কিন্তু সেই সফটওয়্যারে ভাইরাস থাকার কারণে আপনার মোবাইলের কোন ক্ষতি হয়ে গেল। এটি যেন না হয় সেজন্য সব সময় অথেন্টিক সোর্স থেকে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড সফটওয়্যার ইন্সটল করুন। আবার চাইলে আমাদের এই লেখাতে থাকা লিংকটিতে ক্লিক করেও এই সফটওয়্যার গুলো ইন্সটল করে নিতে পারেন। 

শেষ কথা 

এটুকুই ছিল  ভিডিও ডাউনলোড করার সফটওয়্যার সম্পর্কিত আমাদের আজকের আলোচনা। আশা করি কিভাবে ইউটিউব ডাউনলোডার ব্যবহার করে আপনারা মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন সেটি বুঝতে পেরেছেন। যদি লেখাটি ভাল লাগে তাহলে এটি নিজের পরিবার ও বন্ধু-বান্ধবদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। 

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top