Best Blog 24 https://www.bestblog24.com/2022/04/prottoyon-potro-lekhar-niom-bangla.html

প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম (English/বাংলা) | প্রত্যয়ন পত্র নমুনা ২০২২


আপনি যদি কোনো প্রতিষ্ঠান উচ্চপদস্থ কর্মচারী হয়ে থাকেন, বা কোনো গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে থাকেন তাহলে আপনার অবশ্যই প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম জেনে রাখা উচিত । প্রত্যয়ন পত্র আমাদের ব্যক্তিগত বা কর্ম জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ। চাকরির আবেদন বা নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তির জন্য এবং বিভিন্ন সামাজিক প্রয়োজনে আমাদের প্রত্যয়ন পত্রের প্রয়োজন পড়ে। অনেকে হয়ত সঠিকভাবে প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন পত্র লেখার নিয়মাবলী জানেন না। যাইহোক, যারা প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম এবং প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন পত্র লেখার নিয়মাবলী জানতে চান তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট। আজকের এই পোস্টে আমি আলোচনা করব, প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম  (বাংলা/ইংরেজি) ও বিভিন্ন ধরনের প্রত্যয়ন পত্র নমুনা। এবং প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন পত্র লেখার নিয়ম। চলুন আর দেরি না করে শুরু করা যাকঃ

প্রত্যয়ন পত্রের জন্য দরখাস্ত লেখার নিয়ম, প্রত্যয়ন পত্র english, প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন, প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম, দরখাস্ত লেখার নিয়ম, প্রত্যয়ন পত্র, ইংরেজিতে প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম, Pdf স্কুলের প্রত্যয়ন পত্র নমুনা, প্রত্যয়ন পত্র চেয়ে অধ্যক্ষের নিকট আবেদন, অনলাইন প্রত্যয়ন পত্র আবেদন, প্রত্যয়ন পএের জন্য আবেদন লেখার নিয়ম, কোম্পানির প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম, কলেজ প্রত্যয়ন পত্র নমুনা, মাদ্রাসার প্রত্যয়ন পত্র নমুনা, ডাক্তারের প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম, জন্ম নিবন্ধনের জন্য ডাক্তারের প্রত্যয়ন পত্র, প্রধান শিক্ষকের প্রত্যয়ন পত্র, প্রত্যয়ন পত্র কিভাবে লিখবো, কলেজের প্রত্যয়ন পত্র

আরও পড়ুনঃ 

পোস্ট সূচীপত্রঃ

প্রত্যয়ন পত্র কি ? Bangla Prottoyon potro 

প্রত্যয়ন পত্র হল একপ্রকার সনদপত্র । প্রত্যয়নপত্র এমন একটি সনদপত্র যার মাধ্যমে কোন ব্যক্তির বিশেষ বৈশিষ্ট্যের  প্রত্যয়ন করা হয়। প্রত্যয়  শব্দটির আভিধানিক অর্থ হচ্ছে আস্থা। অর্থাৎ,  কোন গণ্যমান্য ব্যক্তি আপনার ব্যক্তিগত  কোন বিশেষ বৈশিষ্ট্যের সত্যায়িত করে যে পত্র প্রদান করেন সেটাই মূলত প্রত্যায়ন পত্র।  যেমন আপনার চরিত্রকে সত্যায়িত করে আপনার এলাকার চেয়ারম্যান যে পত্র প্রদান করেন সেটি একটি প্রত্যায়ন পত্র। এবং আপনার ছাত্রজীবনে  স্কুল থেকে আপনার ছাত্রত্ব এবং  চরিত্রের সত্যায়িত করে যে পত্র প্রদান করেন সেটাও একটি প্রত্যয়ন পত্র। অথবা আপনি যে কোম্পানীতে চাকরী করেন সেখান থেকেও আপনার কর্মদক্ষতা বা চরিত্রের সত্যায়িত করে যে পত্র প্রদান করে সেটিও একটি প্রত্যয়ন পত্র। অতএব সংক্ষেপে বলতে গেলে কোন গন্যমান্য কোন ব্যক্তির বিশেষ বৈশিষ্ট্যের প্রত্যয় মানে আস্তা প্রদান করে বা সত্যায়িত করে যে সনদপত্র প্রদান করেন সেটিই মূলত প্রত্যয়ন পত্র।

প্রত্যয়ন পত্র কত ধরণের?

প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম প্রত্যয়ন পত্রের ধরন অনুযায়ী ভিন্ন হয়ে থাকে। আমাদের দেশে প্রয়োজন অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের প্রত্যায়নপত্র প্রচলিত রয়েছে। আমাদের দেশে প্রচলিত প্রত্যয়ন পত্রের ধরন গুলো নিচে দেওয়া হলঃ

  • উত্তরাধিকার সনদ
  • মৃত্যু সনদ
  •  জাতীয়তা সনদ
  • ভুমিহীন সনদপত্র
  • চারিত্রিক সনদ
  • উপজাতি সনদ
  •  মুক্তিযোদ্ধা সনদ
  • এতিম সনদ
  • বিবাহিত সনদ
  •  অবিবাহিত সনদ
  • বেকারত্ব সনদ
  • পুনঃর্বিবাহ সনদ
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রত্যয়নপত্র
  •  কোম্পানির প্রত্যয়ন পত্র
  •  চাকরির প্রত্যয়ন পত্র

প্রত্যয়ন পত্রের প্রয়োজনীয়তা

জীবনে চলার পথে আমাদের বিভিন্ন কাজে প্রত্যায়নপত্রের প্রয়োজন হয়। ধরুন আপনি এসএসসি পাস করেছেন এখন কলেজে ভর্তি হবেন এজন্য আপনার পূর্বের স্কুলের একটি প্রত্যায়নপত্রের প্রয়োজন হবে। আপনি যদি কলেজ পাশ করে থাকেন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে চান তাহলে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির জন্য আপনার অবশ্যই প্রত্যায়নপত্রের প্রয়োজন। 

ধরুন আপনি চাকরির জন্য আবেদন করবেন,  আবেদনের সাথে অবশ্যই সংযুক্তি হিসেবে আপনার প্রত্যয়ন পত্র প্রদানের প্রয়োজন পড়ে।  চাকরির ভাইভা যোগদানের জন্যও অনেক সময় প্রত্যয়ন পত্র প্রয়োজন হয়।

সামাজিক জীবনের বিভিন্ন কাজে আমাদের প্রত্যায়ন পত্রের প্রয়োজন পড়ে।  জাতীয়তা সনদ,  ভূমিহীন সনদ,  বৈবাহিক সনদ,  ইত্যাদি সামাজিক জীবনেও  বিভিন্ন প্রয়োজনে আমাদের প্রত্যায়নপত্রের প্রয়োজন হয়।

সব ধরনের প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম

প্রত্যয়ন পত্র সাধারণত নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটারে ওয়ার্ড ফাইলে অথবা একটি নির্দিষ্ট প্যাডে পূর্ব থেকেই ফরম্যাট করা থাকে। এবং প্রয়োজন একটি অফসেট পেপারে লিখে সিল মোহর ও স্বাক্ষর দিয়েও  প্রত্যয়ন পত্র প্রদান করা যেতে পারে। প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম,  প্রত্যয়ন পত্র লেখার ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো উল্লেখ করা উচিতঃ

  • প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম হলো,  প্রত্যয়ন পত্রের শিরোনামে অবশ্যই "প্রত্যয়ন পত্র" লেখাটি উল্লেখ থাকতে হবে। 
  • প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম দ্বিতীয় ধাপে  যে ব্যক্তির নামে প্রত্যয়ন পত্র প্রদান করা হবে তার পূর্ণ নাম ও ঠিকানা উল্লেখ থাকতে হবে ।
  • প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম হচ্ছে এমন ভাবে প্রত্যয়ন পত্রের ভাবার্থ প্রকাশ করতে হবে যেন যে কেউ পড়লে প্রত্যয়ন পত্র টি ভালোভাবে বুঝতে পারে।
  •  প্রত্যয়নপত্রে অবশ্যই তথ্য প্রদানকারীর সীল মোহর ও স্বাক্ষর থাকতে হবে।
  • প্রত্যয়নপত্র প্রদানকারী যদি কোন ব্যক্তি হন তাহলে তার সীল মোহর ও স্বাক্ষর অথবা যদি কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে প্রত্যয়ন পত্র প্রদান করা হয় তাহলে প্রতিষ্ঠান প্রধানের সীল ওস্বাক্ষর থাকতে হবে।

সকল ধরনের প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম (বাংলা /ইংরেজি) | প্রত্যয়ন পত্রের নমুনা

আপনি বাংলায় অথবা ইংরেজিতে যে ভাষায় প্রত্যয়ন পত্র লিখন না কেন, প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়মঃ বাংলায় প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম যেমন ইংরেজিতে প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়মও একই।শুধুমাত্র ভাষার পরিবর্তন থাকে।  এছাড়া প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম এবং ফরমেট একই রকমের হয়। 

যাইহোক, এতক্ষণ তো প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম সম্পর্কে জানলাম এখন চলুন ধরন অনুযায়ী কয়েকটি প্রত্যায়নপত্রের নমুনা দেখে নেওয়া যাক,  তাহলে হয়তো আপনারা প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়মাবলী সম্পর্কে ভালোভাবে ধারণা পেয়ে যাবেন।

প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম | চারিত্রিক সনদপত্র লেখার নিয়ম | প্রত্যয়ন পত্র নমুনা

চারিত্রিক সনদপত্র


এই মর্মে প্রত্যয়ন করা যাইতেছে যে …………………………………………………………………...

পিতাঃ ………………………………………., মাতাঃ …………………………………………………গ্রাম /মহল্লাঃ ………………………….,  ডাকঘরঃ ……………………… কোড নংঃ ………………. ওয়ার্ডঃ ………………………………….,  ইউনিয়নঃ …………………….., থানাঃ  ……………….. উপজেলাঃ ………………………….., জেলাঃ …………………,  আমার নিকট সে ব্যক্তিগতভাবে পরিচিত।  আমার জানামতে কোন রাষ্ট্র সমাজ বিরোধী কর্মকান্ডে জড়িত নয়।  তার স্বভাব ও চরিত্র ভালো।  আমি তাহার সর্বাঙ্গীন উন্নতি ও মঙ্গল কামনা করছি।


তারিখঃ …………………..


স্বাক্ষর

সিলমোহর

প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম |  নাগরিক সনদপত্র লেখার নিয়ম | প্রত্যয়ন পত্র নমুনা 

নাগরিক সনদপত্র মূলত  ইউনিয়ন পরিষদ  সিটি কর্পোরেশন এর কার্যালয় থেকে প্রদান করা হয়। নাগরিক সনদ পত্রের একটি নমুনা দেওয়া হলো।

নাগরিক সনদপত্র

এই মর্মে প্রত্যয়ন করা যাইতেছে যে …………………………………………………………………...

পিতাঃ ………………………………………., মাতাঃ …………………………………………………গ্রাম /মহল্লাঃ ………………………….,  ডাকঘরঃ ……………………… কোড নংঃ ………………. ওয়ার্ডঃ ………………………………….,  ইউনিয়নঃ …………………….., থানাঃ  ……………….. উপজেলাঃ ………………………….., জেলাঃ …………………, এলাকার একজন স্থায়ী বাসিন্দা।  আমার জানামতে কোন রাষ্ট্র সমাজ বিরোধী কর্মকান্ডে জড়িত নয়।  তার স্বভাব ও চরিত্র ভালো।  আমি তাহার সর্বাঙ্গীন উন্নতি ও মঙ্গল কামনা করছি। 


তারিখঃ …………………..


স্বাক্ষর

সিলমোহর

প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম |  নাগরিক সনদপত্র লেখার নিয়ম | প্রত্যয়ন পত্র নমুনা

প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম |  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রত্যয়নপত্র লেখার নিয়ম | বিদ্যালয়ের প্রত্যয়ন পত্র  | প্রত্যয়ন পত্র নমুনা 

প্রত্যয়ন পত্র 

এই মর্মে প্রত্যয়ন করা যাইতেছে যে …………………………………………………………………... পিতাঃ ………………………………………., মাতাঃ …………………………………………………গ্রাম /মহল্লাঃ ………………………….,  ডাকঘরঃ ……………………… থানাঃ  ……………….. উপজেলাঃ ………………………….., জেলাঃ …………………, অত্র বিদ্যালয়ের একজন …………  শ্রেণীর ছাত্র/ছাত্রী। এবং……..  সালে বার্ষিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে কৃতিত্বের সহিত উত্তীর্ণ হয়।  সে বিদ্যালয়ের যাবতীয় ফি  পরিশোধ করেছে।  আমার জানামতে তার স্বভাব ও চরিত্র ভালো।  ভর্তি  বহির বর্ণনা অনুযায়ী তার জন্ম তারিখ ………………।

বিদ্যালয় অধ্যায়নকালে সে কোন নিয়ম শৃঙ্খলা বিরোধী কাজে জড়িত ছিল না।

আমি তার ভবিষ্যৎ জীবনের সাফল্য কামনা করছিভ


তারিখঃ …………………..


স্বাক্ষর

সিলমোহর

প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম |  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রত্যয়নপত্র লেখার নিয়ম | বিদ্যালয়ের প্রত্যয়ন পত্র  | প্রত্যয়ন পত্র নমুনা

প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম |  কোম্পানির প্রত্যয়নপত্র লেখার নিয়ম | চাকরির প্রত্যয়ন পত্র  | প্রত্যয়ন পত্র নমুনা 

প্রত্যয়ন পত্র 

এই মর্মে প্রত্যয়ন করা যাইতেছে যে …………………………………………………………………... পিতাঃ ………………………………………., মাতাঃ ………………………………………………… গ্রাম /মহল্লাঃ ………………………….,  ডাকঘরঃ ……………………… থানাঃ  ……………….. উপজেলাঃ ………………………….., জেলাঃ …………………, আমাদের  কোম্পানিতে  দীর্ঘদিন ……………….  পদে অত্যন্ত সততা ও কৃতিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। আমি অত্যন্ত আশাবাদী যে তিনি ভবিষ্যতে যে কোম্পানিতে যাবেন, সেই কোম্পানিতে অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে  তার দায়িত্ব পালন করবেন। 

আমি তার ভবিষ্যৎ জীবনের সাফল্য কামনা করছিভ


তারিখঃ …………………..

স্বাক্ষর

সিলমোহর

প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন পত্র লেখার নিয়ম

মৌখিক আবেদন এর মাধ্যমে প্রত্যয়ন পত্র উত্তোলন করা যায়। তবে অনেক সময়ই প্রত্যয়ন পত্র উত্তোলনের জন্য আমাদের আবেদনপত্র লেখার প্রয়োজন পড়ে। এজন্য আপনার সঠিকভাবে প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন পত্র বা দরখাস্ত লেখার নিয়মাবলী জানা উচিত। প্রত্যয়ন পত্র চেয়ে আবেদন পত্র লেখার নিয়ম প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন পত্র নমুনা দেখুনঃ 

তাংঃ ০২/ ০১/ ২০২২ ইং

বরাবর,

প্রধান শিক্ষক 

জে সি এস মাধ্যমিক বিদ্যালয়

পাটকেলঘাটা সাতক্ষীরা


বিষয়ঃ  প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন।


 জনাব,

যথাবিহীত সম্মানপূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে,  আমি আপনার বিদ্যালয়ের  একজন নিয়মিত ছাত্র ছিলাম। আমি গত ২০২১ সালে  অনুষ্ঠিত এস এস সি পরীক্ষায় অত্যন্ত কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ  হয়েছি।  এখন আমি  উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য কলেজে ভর্তি হতে চাই। এজন্য আমার আপনার নিকট থেকে একটি প্রত্যায়নপত্র প্রয়োজন।  উল্লেখ্য, বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আমার সক্রিয় অংশগ্রহণ ছিল এবং বিদ্যালয়ের অধ্যায়নকালীন সময়ে আমি কোন আইন শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত ছিলাম না।


অতএব, জনাব সমীপে আমার একান্ত আবেদন এই যে,  যাতে আমি উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য আপনার নিকট থেকে প্রত্যয়ন পত্র পেতে পারি তার বিহিত ব্যবস্থা করতে আপনার মর্জি হয়।


বিনীত নিবেদক

নামঃ

শ্রেণীঃ

রোল নাম্বারঃ

জে সি এস মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

পাটকেলঘাটা সাতক্ষীরা।


অনলাইনে প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন করার নিয়ম

প্রযুক্তির উন্নয়নের সাথে সাথে বাংলাদেশও এগিয়ে যাচ্ছে। আগে আমাদের নাগরিকত্ব  সনদ, চারিত্রিক সনদ, মৃত্যু সনদ, জাতীয়তা সনদ  ইত্যাদির জন্য চেয়ারম্যানের নিকট অথবা সিটি করপোরেশনে যেতে হতো। কিন্তু বর্তমানে আমরা অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের প্রত্যয়নপত্র পেতে পারি।এজন্য আপনাকে https://prottoyon.gov.bd/ ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এরপর আপনার যে ধরনের প্রত্যয়ন পত্র প্রয়োজন  সেই প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন করতে হবে।  অনলাইনের মাধ্যমে আপনি যে সকল প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবেন সেগুলো হলোঃ

  • উত্তরাধিকার সনদ
  • মৃত্যু সনদ
  • জাতীয়তা সনদ
  • ভূমিহীন সনদ
  • নতুন ভোটার প্রত্যয়ন
  • উপজাতি সনদ
  • চারিত্রিক সনদ
  • একই ব্যক্তির প্রত্যয়ন
  • মুক্তিযোদ্ধা প্রত্যয়ন
  • বার্ষিক আয়ের সনদ
  • এতিম সনদ
  • বিবাহিত সনদ
  • মাসিক আয়ের সনদ
  • অবিবাহিত সনদ
  • পুনঃবিবাহ সনদ
  • বেকারত্ব সনদ


পরিশেষ, 

সামাজিক, ,ছাত্রজীবন বা কর্মজীবনের  বিভিন্ন প্রয়োজনে আমাদের প্রত্যায়নপত্রের প্রয়োজন হয়।  অনেক সময় মৌখিকভাবে আবেদনের মাধ্যমে প্রত্যায়ন পত্র উত্তোলন করা যায়।  তবে বিভিন্ন সময় প্রত্যয়নপত্র উত্তোলনের জন্য আমাদের প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন পত্র লিখতে হয়। জন্য প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন পত্র লেখার নিয়ম জেনে রাখা উচিত। আশাকরি আপনারা প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম,  চারিত্রিক সনদপত্র লেখার নিয়ম,  নাগরিক সনদপত্র লেখার নিয়ম,  কোম্পানি সংবাদ পত্র লেখার নিয়ম, সর্বোপরি প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম সম্পর্কে ধারণা পেয়েছেন।


Tags: প্রত্যয়ন পত্রের জন্য দরখাস্ত লেখার নিয়ম, প্রত্যয়ন পত্র english, প্রত্যয়ন পত্রের জন্য আবেদন, প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম, দরখাস্ত লেখার নিয়ম, প্রত্যয়ন পত্র, ইংরেজিতে প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম, Pdf স্কুলের প্রত্যয়ন পত্র নমুনা, প্রত্যয়ন পত্র চেয়ে অধ্যক্ষের নিকট আবেদন, অনলাইন প্রত্যয়ন পত্র আবেদন, প্রত্যয়ন পএের জন্য আবেদন লেখার নিয়ম, কোম্পানির প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম, কলেজ প্রত্যয়ন পত্র নমুনা, মাদ্রাসার প্রত্যয়ন পত্র নমুনা, ডাক্তারের প্রত্যয়ন পত্র লেখার নিয়ম, জন্ম নিবন্ধনের জন্য ডাক্তারের প্রত্যয়ন পত্র, প্রধান শিক্ষকের প্রত্যয়ন পত্র, প্রত্যয়ন পত্র কিভাবে লিখবো, কলেজের প্রত্যয়ন পত্র

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?