বাংলাদেশের সেরা ১০টি ফ্রিল্যাসিং শেখার প্রতিষ্টান

আপনি কি ফ্রিল্যান্সিং শিখতে চাচ্ছেন কিন্তু কোন প্রতিষ্ঠান থেকে শিখবেন তার ডিসাইড করতে পারছেন না? তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য আমি আজকে এই আর্টিকেল আলোচনা করব বাংলাদেশের সেরা 10 ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে। বর্তমানে বাংলাদেশের মানুষের কাছে বিশেষ করে যারা ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে তাদের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি পেশা হয়ে দাঁড়িয়েছে ফ্রিল্যান্সিং। টাকা ইনকামের জন্য যেখানে মানুষকে দিনের-পর-দিন হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করতে হয় সেখানে আপনি যদি ঘরের বাইরে না যেয়ে ঘরে বসে ইনকাম করতে পারেন তাও আবার কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই তাহলে ব্যাপারটা সত্যিই দারুণ। সবাই তো চায় কষ্ট কম করে ইনকাম বেশি করতে। তাই বেশিরভাগ ছাত্র ছাত্রীরাই এখন ঝুঁকে পড়ছে ফ্রিল্যান্সিং এর দিকে।

কিন্তু আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিংকে ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে চান এবং ফ্রিল্যান্সিং থেকে সফল ভাবে ইনকাম করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই কোন না কোন একটি প্রতিষ্ঠানেৱ আওতায় থেকে ভালোভাবে কাজ শিখে নিতে হবে তারপর আপনি চাইলে ঘরে বসেই ক্লায়েন্ট ম্যানেজ করে কাজ করতে পারবেন। অনেকেই আছেন যারা ভালো ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান খুঁজে না পাওয়ার কারণে প্রশিক্ষণ নিতে পারছেন না এবং ইচ্ছা থাকা সত্বেও ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে পারছেন না। আজকের এই আর্টিকেলটি তাদের জন্য অনেক উপকারে আসবে। আজকে এই আর্টিকেলটি থেকে আপনি সরকারী ভাবে ফ্রিলাসিং প্রশিক্ষণ প্রতিষ্টান সম্পর্কেও বেশ ভাল ধারনা পাবেন।

বাংলাদেশের সেরা ১০টি ফ্রিল্যাসিং শেখার প্রতিষ্টান

 

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান

ফ্রিল্যান্সিং বলতে সাধারণত স্বাধীন বা মুক্ত পেশা বোঝানো হয়ে থাকে। যারা ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ করে থাকেন তাদের কে স্বাধীন কন্টাক্টৱ বা self-employed ওয়ার্কার নামে ডাকা হয়ে থাকে। ফ্রিল্যান্সিং এ ক্যারিয়ার শুরু করার আগে আপনাকে প্রথমেই যে কাজটি করতে হবে সেটি হচ্ছে আপনি কোন বিষয়ের উপর কাজ শিখতে চাচ্ছেন সিটি নির্বাচন করতে হবে। তারপর আপনাকে খোঁজ নিতে হবে আপনি যে কাজটি শিখতে চাচ্ছেন সে কাজটি আসলে কোন প্রতিষ্ঠান থেকে শিখলে আপনি ভালভাবে শিখতে পারবেন। বর্তমানে ভালো মানের আইটি ট্রেনিং সেন্টার খুঁজে পাওয়া অনেক মুশকিল।

আমি আজ আপনাদেরকে এমন কিছু স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ধারণা দিতে চলেছি যেসব প্রতিষ্ঠান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে আজ পর্যন্ত অনেক মানুষ প্রতিষ্ঠিত হতে পেরেছে। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে কোর্স করে সফল হয়েছে এমন অনেক স্টুডেন্টদের রিভিউ পাওয়া যায়। চলুন তাহলে কথা না বাড়িয়ে নিচে বাংলাদেশের সেরা 10 টি  ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

বাংলাদেশের সেরা আইটি প্রতিষ্ঠান

নিচে বেশকিছু বাংলাদেশের সেরা আইটি প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে আলোচনা করা হলো। এই আইটি সেন্টার গুলো খুবই বিশ্বস্ত এবং জনপ্রিয়। আপনি চাইলে যেকোনো একটি আইটি সেন্টার বাছাই করে সেখান থেকে প্রশিক্ষণ নিতে পারেন এবং আপনিও হয়ে উঠতে পারে জন সফল ফ্রিল্যান্সার।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | ক্রিয়েটিভ আইটি ইনস্টিটিউট

ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য সবচাইতে বিশ্বস্ত এবং সুপরিচিত একটি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে ক্রিয়েটিভ আইটি। এটি একটি মাল্টিমিডিয়া ট্রেনিং সেন্টার। এটি বিভিন্ন বিষয়ের উপর ট্রেনিং প্রদান করে থাকে আপনি চাইলে নিজের পছন্দ মত কোন একটি বিষয়ে ট্রেনিং নিয়ে সহজে শুরু করতে পারবেন ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার। তারা আপনাকে ফ্রিল্যান্সিংয়ের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সম্পূর্ণ গাইড লাইন খুব সহজ ভাবে বুঝিয়ে দিবে। ধৈর্যসহকারে লেগে থাকতে পারলে এখান থেকে আপনি সহজে কাজ শিখে নিতে পারবেন। ক্রিয়েটিভ আইটি ইনস্টিটিউট খুবই স্বল্পমূল্যে মানসম্মত কোর্স অফার করে থাকে।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | ইশিখন ডটকম

বর্তমানে বাংলাদেশের সবচাইতে জনপ্রিয় একটি অনলাইন প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান হচ্ছে ইশিখন ডটকম। এটি বাংলাদেশের সবচাইতে বড় একটি  ফ্রিল্যান্সিং শিক্ষার প্রতিষ্ঠান। সব সময় আমাদের আশেপাশে হয়ত ফ্রিল্যান্সিং শেখার ভালো প্রতিষ্ঠান খুঁজে পাওয়া যায় না বিশেষ করে ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম খুঁজে পাওয়া খুবই মুশকিল। কিন্তু আপনারা চাইলে ইশিখন ডটকম এর মাধ্যমে অনলাইনে প্রশিক্ষণ নিয়ে হয়ে উঠতে পারে একজন দক্ষ ফ্রিল্যান্সার। এই প্রতিষ্ঠানটিতে আপনি চাইলে দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে ঘরে বসেই কোর্স করতে পারেন। ইশিখন ডটকম এর কোর্সগুলোর মূল্য মানুষের সাধ্যের ভিতরে।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | আইটি বাড়ি

 ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য বাংলাদেশের জনপ্রিয় আরেকটি আইটি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান হচ্ছে আইটি বাড়ি। আইটি বাড়ি একটি অন্যতম জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং ট্রেনিং সেন্টার। তারা সাশ্রয়ী মূল্যে ভালোমানের ফ্রিল্যান্সিং কোর্স অফার করে থাকে। তাদের সম্পর্কে আরো ভালোভাবে জানতে তাদের ফেসবুক পেইজ  এবং ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। তাদের স্টুডেন্টদের সফলতার গল্প দেখতে পাবেন।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | সফটেক আইটি

সফটেক আইটি প্রফেশনাল ওয়েব ডিজাইনার ও ওয়েব ডেভলপার কোর্সের জন্য বাংলাদেশে সেরা। যারা প্রফেশনালি ওয়েব ডিজাইন এবং ওয়েব ডেভলপমেন্ট হতে চান তাদের জন্য সফটেক আইটি হতে পারে সেটা ট্রেনিং সেন্টার। সফটেক আইটি কোর্সেৱ মূল্য খুব স্বল্প। সফটটেক-আইটি সকল কোর্স মাত্র চার মাস মেয়াদী হয়ে থাকে। সফটটেক-আইটি ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট ছাড়াও আরো বিভিন্ন কোর্সের ট্রেনিং প্রদান করে থাকে যেমন গ্রাফিক ডিজাইন ডিজিটাল মার্কেটিং ভিডিও এডিটিং ইত্যাদি।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | বিআইটিএম

বাংলাদেশের একমাত্র জাতীয় পর্যায়ে সফটওয়্যার নির্মাতা প্রথম সংগঠন হচ্ছে বিআইটিএম। বি আই টি এম এর সম্পূর্ণ নাম হচ্ছে বেসিস ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট। এই ইনস্টিটিউট পার্টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল আইটি সেক্টরে বিশ্বমানের হওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে। বিআইটিএম প্রতিষ্ঠান্ রয়েছে 200 জনেরও বেশি প্রশিক্ষক। এছাড়াও নিয়মিত প্রোগ্রামের ভিত্তিতে আপনি বৃত্তি মাধ্যমে একটি বিনামূল্যে কোর্স পেতে পারেন। বিআইটিএম বিভিন্ন ধরনের কোর্স অফার করে থাকে।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | কোডর্স ট্রাস্ট

বর্তমানে বাংলাদেশে জনপ্রিয়তাৱ তুঙ্গে রয়েছে কোডার্স ট্রাস্ট। কোডার্স ট্রাস্ট বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং কোর্স অনেক সাশ্রয়ী মূল্যে সরবরাহ করে থাকে। কোডার্সট্রাস্ট থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে হাজার হাজার স্টুডেন্ট এখন সফল ফ্রিল্যান্সার। আপনিও চাইলে কোডার্স ট্রাস্ট থেকে অনলাইন অথবা অফলাইন যে কোন মাধ্যমে প্রশিক্ষণ নিতে পারেন এবং হয়ে উঠতে পারেন একজন সফল ফ্রিল্যান্সার। তাদের কোর্সগুলো সম্পর্কে  বিস্তারিত জানতে হলে তাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | DUSRA Soft ইনস্টিটিউট

DUSRA Soft বাংলাদেশের একটি অন্যতম আইটি প্রশিক্ষণ এবং সফটওয়্যার ডেভলপমেন্ট কোম্পানির যেটি কিনা 2010 সাল থেকে কাজ শুরু করেছে। দুসরা সফট ওয়েব ডিজাইন ওয়েব ডেভলপমেন্ট ওয়েব এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট অফ ডেভলপমেন্ট এসইও এবং ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | সফটনেটবিডি

2014 সালে স্বল্পসংখ্যক কিছু  ছাত্র-ছাত্রী নিয়ে প্রতিষ্টিত হয় আইটি ইনস্টিটিউট সফটনেটবিডি। সফটনেটবিডি বিভিন্ন ধরনের আইটি ও ওয়েবসাইট সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। তারা যেসব বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো এসইও, web-development, web design, ডিজিটাল মার্কেটিং, ডোমেইন-হোষ্টিং, সফট্ওয়ার পরিষেবা ইত্যাদি।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | নেবুলাস আইটি

বাংলাদেশ অত্যন্ত মানসম্মত একটি আইটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র হচ্ছে নেবুলাস আইটি। দক্ষতা ভিত্তিক যেসব আইটি কোর্স রয়েছে নেবুলাস আইটি সেগুলোৱ উপর বিভিন্ন শিক্ষার্থীদের ট্রেনিং প্রদান করে থাকে। তাদের উল্লেখযোগ্য কিছু কোর্স হচ্ছে গ্রাফিক ডিজাইন ওয়াডপ্রেস থিমস ডেভলপমেন্ট ডিজিটাল মার্কেটিং ভিডিও এডিটিং ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান | এক্সটেন্ট আইটি ইন্সটিটিউট

বাংলাদেশের বহুল জনপ্রিয় আরেকটি  আইটি সেন্টার ও ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ  প্রতিষ্ঠান হচ্ছে এক্সটেন্ড আইটি ইন্সটিটিউট। এক্সটেন্ড আইটি ইনস্টিটিউট বিভিন্ন কোর্সেৱ ওপর বিভিন্ন ধরনের অফার প্রদান করে থাকে। এক্সটেন্ড আইটি ইন্সটিটিউট গ্রাফিক্স ডিজাইন ওয়েব ডিজাইন ওয়েব ডেভলপমেন্ট ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট ডিজিটাল মার্কেটিং  ভিডিও এডিটিং এর উপর ট্রেনিং প্রদান করে থাকে।

পরিশেষে,

উপরে আমি বাংলাদেশের সেরা 10 টি ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে আলোচনা করেছি। আমি আমার সাধ্যমত চেষ্টা করেছি আপনাদের কে বাংলাদেশের সেরা আইটি প্রতিষ্ঠান গুলোর সাথে পরিচয় করাইয়া দেওয়ার জন্য। ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা ঠিক যতটা সহজ আবার ফ্রিল্যান্সিং শিখবো ঠিক ততটাই কঠিন। আপনি যদি ধৈর্যশীল না হন তাহলে আপনি কখনোই ফ্রিল্যান্সিং জগতে সফলতা অর্জন করতে পারবেন না। একজন সফল ফ্রিল্যান্সার হতে হলে আপনাকে যথেষ্ট সময় দিতে হবে এবং চর্চা করে দক্ষতা অর্জন করতে হবে তবেই আপনি একজন দক্ষ ফ্রিল্যান্সার হতে পারবেন। আজ এখানেই বিদায় নিচ্ছি। আবারো খুব শীঘ্রই নতুন কোন আর্টিকেল নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হব। সে পর্যন্ত ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top