গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম

বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তির সাহায্য তো আমাদের সবাইকে সব সময় নিতে হয়। বিশেষ করে এখন ইন্টারনেটের বিভিন্ন সার্ভিস ব্যবহার করে আমরা আমাদের বিভিন্ন কাজ করে থাকি। যেমনঃ গুগল একাউন্ট ব্যবহার করে আমরা আমরা যেমন পড়াশোনা ও অফিসের কাজ করে থাকে তেমনি বিভিন্ন চিত্তবিনোদনের কাজও করে থাকি। কিন্তু যদি এমন হয় যে আপনার গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড অন্য কেউ জেনে গেলো? তখন কি করবেন? ঠিক ধরেছেন! পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করতে হবে। আজকের আর্টিকেলে আমি আপনাদেরকে জানাবো গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম সম্পর্কে। 

গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম
গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম

আরও পড়ুনঃ

 গুগল একাউন্ট কি? 

গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম সম্পর্কে জানার আগে চলুন আপনাদেরকে জানিয়ে দেই গুগল একাউন্ট বলতে আসলে কি বোঝায়।  গুগল একাউন্ট হচ্ছে গুগলের এমন একটি অ্যাকাউন্ট যেই একাউন্ট দিয়ে আপনারা গুগলের সমস্ত সার্ভিস একবারেই নিতে পারবেন। কি? বুঝতে অসুবিধা হচ্ছে? আরেকটু ভেঙে বলছি। 

বর্তমানে গুগল কিন্তু আমাদেরকে অনেক রকম সার্ভিস দিয়ে থাকে। যেমনঃ লেখালেখি করার জন্য গুগোল ডক, কোন তালিকা তৈরি করার জন্য গুগল শিটস, প্রেজেন্টেশন বানানোর জন্য গুগল স্লাইডস, কোন স্থানের লোকেশন দেখার জন্য গুগল ম্যাপ, ভিডিও দেখার জন্য ইউটিউব, লেখালেখি করার জন্য ব্লগার অথবা কোন এডুকেশনাল কাজে ব্যবহার করার জন্য গুগল ক্লাসরুম৷  

যদি আপনাদের গুগলের একটি একাউন্ট থাকে তাহলে আপনারা সেই একটি অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করার মাধ্যমেই গুগলের এর যাবতীয় সার্ভিস একটি একাউন্টের মাধ্যমে নিয়ে নিতে পারবেন। কি, দারুন না?

গুগল একাউন্ট কিভাবে ওপেন করবেন?

গুগল অ্যাকাউন্ট ওপেন করার জন্য আপনাদেরকে গুগলের জিমেইল এর সাহায্য নিতে হবে।  জিমেইল হচ্ছে গুগলের ইমেইল সেন্ড ও ইমেইল রিসিভের একটি সার্ভিস৷ আপনারা একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট ওপেন করলেই সেই অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে গুগলের সব সার্ভিস নিয়ে নিতে পারবেন। 

জিমেইল আমাদের প্রতিদিনের লাইফে অনেক কাজে লাগে।আমরা জিমেইল ব্যবহার করে আমাদের পড়াশোনার বিভিন্ন আপডেট যেমনঃ পরীক্ষার রুটিন, পরীক্ষার সিলেবাস ইত্যাদি আদান-প্রদান করে থাকি।  আবার আমরা যারা অফিসে জব করি, তারা জিমেইল এর মাধ্যমে প্রতিদিন অনেককে ইমেইল সেন্ড করে থাকে এবং অনেকের কাছ থেকে ইমেইল রিসিভ করে থাকি। আবার বিভিন্ন ই-কমার্স সাইট থেকেও কিন্তু আমরা জিমেইলের মাধ্যমে একাউন্ট ক্রিয়েট করে সেখান থেকে কেনাকাটা করে থাকি৷  তাই বলা যেতে পারে আমাদের প্রতিদিনের জীবনে জিমেইলের অবদান অনেক বেশি। 

এখন প্রশ্ন হল জিমেইল একাউন্ট ওপেন করবেন কিভাবে৷ জিমেইল অ্যাকাউন্ট ওপেন করার জন্য আপনাদেরকে www.gmail.com সাইটে প্রবেশ করতে হবে। তারপর ক্রিয়েট এন একাউন্ট অপশনটি সিলেক্ট করতে হবে।  এই অপশনটি থেকে গুগল একাউন্ট ক্রিয়েট করতে হয়। এই অপশনে নিজেদের নাম, জন্মতারিখ, ফোন নাম্বার, যে ইমেইল এড্রেস দিতে চান সেটি এবং একটি পাসওয়ার্ড সেট করার মাধ্যমে আপনারা দুই মিনিটে জিমেইল একাউন্ট ক্রিয়েট করে ফেলতে পারবেন।  এই জিমেইল অ্যাকাউন্ট দিয়ে আপনারা গুগলের সমস্ত সার্ভিস ইউজ করতে পারবেন।

গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম কেন জানবেন? 

গুগল একাউন্ট কিভাবে ওপেন করতে হয় সেটি তো শিখে নিলেন। এবার নিশ্চয়ই আপনারা জানতে চাইবেন যে গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড করার নিয়ম সম্পর্কে কেন জানা থাকতে হবে৷  সত্যি বলতে আমরা আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজই কিন্তু গুগল একাউন্টের মাধ্যমে করে থাকি৷  

অনেকের গুগল একাউন্টে তাদের ব্যাংকের ইনফরমেশন থাকে, ওয়েবসাইটের ডিটেইল থাকে। এছাড়াও আরো এমন অনেক গুরুত্বপূর্ণ ইনফরমেশন থাকে যেগুলো অন্য কারো হাতে গেলে আমাদেরই বিপদ।  যদি কোন হ্যাকার আমাদের এই ব্যক্তিগত তথ্য গুলো জেনে যায়, তাহলে তারা সেটি খারাপ কাজে ব্যবহার করতে পারে এবং আমাদেরকে বিপদে ফেলে দিতে পারে।  আর বর্তমানে হ্যাকারদের সংখ্যা অনেক বেশি হওয়ায় আমাদের কারো গুগল একাউন্টই কিন্তু নিরাপদ নয়। সত্যি বলতে যেকোন সময় হ্যাক হয়ে যেতে পারে। 

এ কারণে নিজের গুগল একাউন্টের সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য প্রত্যেককে গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম সম্পর্কে জেনে রাখতে হবে। তাহলে যদি কখনো অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে গুগল অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে যায়, তাহলে আপনারা তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নিতে পারবেন ও পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে দিতে পারবেন৷ 

গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম

আমরা দেখতে দেখতে চলে এসেছি আমাদের আজকের লেখার সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ অংশে। এখন আমি আপনাদের জানাবো গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম।  যেটি ফলো করার মাধ্যমে আপনারা আপনাদের পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করে ফেলতে পারবেন৷ 

অনেকে মনে করে থাকেন যে গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম বোধহয় খুব কঠিন। আসলে এটি এতই সহজ যে কোন ছোট বাচ্চাকে শিখিয়ে দিলে সেও করে ফেলতে পারবে। গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম হলো শুরুতেই  নিজের জিমেইল অ্যাকাউন্টে লগ-ইন করে নিন। এরপর ডান কোনায় নিজের প্রোফাইল পিকচারে ক্লিক করে সেখান থেকে ম্যানেজ ইউর গুগল একাউন্ট অপশনটি সিলেক্ট করুন৷  সেই অপশন থেকে সিকিউরিটি সেকশনে যান। 

সিকিউরিটি অপশনে গেলে আপনারা পাসওয়ার্ড অপশনটি দেখতে পাবেন। এ পাসওয়ার্ড সেকশনটি থেকে গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করতে হয়। তাই এ সেকশনে যাওয়ার জন্য শুরুতেই নিজের পাসওয়ার্ড দিন।  তারপর নিচে চেঞ্জ ইওর পাসওয়ার্ড অপশন এ যে নতুন পাসওয়ার্ড সেট করতে চাচ্ছেন সেটি লিখে কনফার্ম করুন। এভাবেই আপনার গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড চেঞ্জ হয়ে যাবে।

আরো পড়ুন: ইমেজ এর মাধ্যমে সার্চ করুন গুগলে

গুগল একাউন্ট সুরক্ষিত রাখার কিছু টিপস

আশা করি আপনারা সবাই গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম বুঝতে পেরেছেন।  এবার আমি আপনাদেরকে জানাবো নিজেদের গুগল একাউন্ট সুরক্ষিত রাখার জন্য আপনারা কোন টিপস গুলো ফলো করতে পারেন।

নিজের মুল্যবান গুগল একাউন্টে সবসময় সুরক্ষিত রাখার জন্য একটি স্ট্রং পাসওয়ার্ড এর কোন বিকল্প নেই। অনেকেই মনে করেন পাসওয়ার্ড যেমন তেমন দিলেই হলো! কেউ হয়তো হ্যাক করতে পারবে না।  অনেকে তাদের নামের সাথে নিজেদের জন্মতারিখ মিলিয়ে একটি সহজ পাসওয়ার্ড সেট করে থাকেন।  আবার অনেকেই নিজের মোবাইল নাম্বারকে পাসওয়ার্ড হিসেবে সেট করে থাকেন। এটি অনেক বড় একটি ভুল। 

এখন প্রশ্ন হলো তাহলে পাসওয়ার্ড সেট করবেন কিভাবে? পাসওয়ার্ড সেট করার ক্ষেত্রে আমার সাজেশন হলো কোন কঠিন ওয়ার্ড বা নাম্বার বেছে নিন যেটি সহজে কোন হ্যাকার হ্যাক করতে পারবেনা। এছাড়াও যখন পাসওয়ার্ড সেট করবেন, পাসওয়ার্ডে বড় হাতের অক্ষর, ছোট হাতের অক্ষর, নাম্বার, বিভিন্ন সিম্বল ইত্যাদির সমন্বয়ে পাসওয়ার্ড তৈরি করুন।  এতে করে আপনার পাসওয়ার্ড অনেক স্ট্রং হয়ে যাবে এবং কোন হ্যাকারের পক্ষেই সেটি সহজে হ্যাক করা সম্ভব হবে না। 

এছাড়াও গুগল একাউন্ট সুরক্ষিত রাখার জন্য আমি সবাইকে বলব টু-ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন অন করে রাখতে। টু ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন হচ্ছে গুগল একাউন্টের সিকিউরিটি নিশ্চিত করার জন্য একটি অপশন। এখানে গুগল একাউন্টে একটি আলাদা ফোন নাম্বার অথবা ইমেইল এড্রেস সেট করা হয়।  

যখন অন্য কেউ অ্যাকাউন্টে লগইন করতে যায়, তখন ওই সেট করা নাম্বারে টেক্সট আসে অথবা ই-মেইলে মেইল আসে। এতে করে কেউ একাউন্ট হ্যাক করার চেষ্টা করছে এটি বোঝা যায় এবং তাৎক্ষণিকভাবে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে দেওয়া যায়। 

টু-ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন অন করার জন্য প্রথমে গুগলের ম্যানেজ ইয়োর গুগল একাউন্ট অপশনে গিয়ে সিকিউরিটি সেকশনে যেতে হবে৷  সেখানে টু ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন অপশনটি দেখতে পাবেন। অপশনে গিয়ে মোবাইল নাম্বার সেট করুন অথবা একটি আলাদা ইমেইল এড্রেস দিন।  তারপর টু ফ্যাক্টর ভেরিফিকেশন অন করে দিন।  এভাবেই আপনারা নিজেদের গুগল একাউন্ট সুরক্ষিত রাখতে পারবেন। 

শেষ কথা 

আশা করি গুগল একাউন্টের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার নিয়ম সম্পর্কে আপনাদের আর কোন সন্দেহ নেই। পাশাপাশি আপনারা কিভাবে নিজেদের গুগল একাউন্ট সব সময় সুরক্ষিত ও নিরাপদে রাখতে পারবেন, সেটিও বুঝতে পেরেছেন। যদি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লাগে, তাহলে নিজের পরিবার ও বন্ধুবান্ধবের সাথে এটি শেয়ার করুন।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Scroll to Top